ঢাকা   ৩রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । ১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রেলের খাবার গাড়িগুলো নতুন সিন্ডিকেটের দখলে

প্রতিবেদকের নাম
  • প্রকাশিত : রবিবার, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২৪
  • 118 শেয়ার

বিশেষ প্রতিনিধি
বাংলাদেশ রেলওয়ে খাবার গাড়ি গুলো ৩/৪ টা ক্যাটারিং সার্ভিসের দুর্নীতিবাজ সিন্ডিকেটের দখলে। রেল মন্ত্রণালয়ের কতিপয় অসাধু কর্মকর্তার সহায়তায় খাবার গাড়ি গুলো ভাগ বটোয়ারা করে রেখেছে সিন্ডিকেট। কোনো রকম দরপত্র আহ্বান ছাড়া মেসার্স হাবিব এন্ড সন্স, ও সুরুচি ফাস্টফুড কোম্পানি দুটি রেলওয়ের প্রভাবশালী অসাধু কর্মকর্তার সহায়তায় ব্যাবসা করে চলছে। সিন্ডিকেট এর মূল হোতা আবদুর রাজ্জাক ভূইয়া ও মামুন ভূইয়া সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মোটা অঙ্কের অর্থের বিনিময়ে কোনো রকম দরপত্র আহ্বান ছাড়া একের পর এক কাজ হাতিয়ে নিচ্ছে। রেলের খাবার গাড়িগুলোসহ ওয়ান বোর্ড সার্ভস রেলওয়ে এদের দখলে। ২০০১ সাল থেকে এই সিন্ডিকেট সক্রিয়ভাবে দখলদারিত্ব করে চলেছে। আবদুর রাজ্জাক ভূইয়ার বাড়ি নোয়াখালী সোনাইমুড়ী থানার অম্বলনগর ইউনিয়নের ওয়াশেকপুর। তিনি ৫নং অম্বর নগর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি।
গত বছরের ২৮ শে অক্টবর কমলাপুর সহ নয়াপল্টনে বিএনপির জ্বালাও পোড়াও সমাবেশের কার্য পরিচালনা কাজে অর্থের যোগানদাতা হিসেবে পরিচিত। মামুন ভূইয়া ও আবদুর রাজ্জাক ভূইয়া সকল গাড়িগুলো সিন্ডিকেট করে নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নেন। ঢাকা কক্সবাজার রুটের নতুন খাবার গাড়িগুলোও এরা নিজেদের করে নিয়েছেন টেন্ডার মূল্যায়ন ছাড়া। যার কারণে রেল পথে যাতায়াত করা যাত্রী সাধারণ ভালো মানের খাবার সেবা পান না। এ নিয়ে যাত্রীদের বিস্তর অভিযোগ ও ক্ষোভ রয়েছে। রেলওয়ের সেবার মান উন্নত করতে সরকারের বৃহৎ পরিকল্লপনা ও সদিচ্ছার বাস্তবায়নে এই সিন্ডিকেট প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক কর্মকর্তা ও কর্মচারীর কাছ থেকে জানা গেছে। এ বিষয়ে সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে আর্থিক সুবিধাদি দিয়ে সবকিছু আড়ালে রাখার চেষ্টা করা হয় বলে জানা যায়। এই সকল অসাধু দুষ্কৃতিকারী চক্রের হাত থেকে রেলকে মুক্ত করে যাত্রী সেবার মান উন্নত করার দাবি জনসাধারণের।

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০