ঢাকা   ২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
এবার সোনালী ব্যাংকের পদও হারাচ্ছেন ছাগলকাণ্ডের মতিউর এনবিআরের পদ থেকে সরানো হলো মতিউরকে আওয়ামী লীগের গৌরবের ৭৫ বছর: বঙ্গবন্ধু থেকে শেখ হাসিনা সিঙ্গেল লাইফে চিন্তা নেই, ঝামেলা নেই : মোনালিসা স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার অঙ্গীকার-শপথ নিয়ে আ.লীগের সৃষ্টি ঈদের ১৩ দিনে পদ্মা সেতুতে টোল আদায় ৪২ কোটি টাকা আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক পরিষদ সিলেট মহানগর শাখার আংশিক কমিটি ঘোষণা, অরবিন্দু সভাপতি ও নন্দলাল সম্পাদক নয়াদিল্লি পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী, আজ শনিবার মোদির সঙ্গে একান্ত বৈঠক কুষ্টিয়ায় সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে ছত্রিশ ঘন্টার আল্টিমেটাম

মানিকগঞ্জের কালিগঙ্গা নদী থেকে বালু হরণ করছে মিলন ও ফরহাদ

প্রতিবেদকের নাম
  • প্রকাশিত : শনিবার, জানুয়ারি ২০, ২০২৪
  • 79 শেয়ার

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি মোঃ মাহাবুব আলম তুষার

বাংলাদেশ একটি নদীমাতৃক দেশ ৷ (বঙ্গো + আল) থেকেই বাংলাদেশের নামের উৎপত্তি ৷ নদী ,নালা, খাল, বিল এটা বাংলাদেশের স্বনামধন্য ঐতিহ্য ৷ কালের বিবর্তনে এবং জলদস্যদের ও ভূমিদস্যদের কারণে এ ঐতিহ্য এখন হুমকির সম্মুখীন ৷ এ ঐতিহ্য কে টিকে রাখার জন্য বাংলাদেশ সরকার বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছেন ৷ তবুও কিছু লোক বাংলাদেশ সরকারের সকল নিয়মকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে নিয়মের তোয়াক্কা না করে অনিয়ম ভাবে ধ্বংস করে যাচ্ছে এ ঐতিহ্যকে ৷
মানিকগঞ্জে স্থানীয় জনতার সম্মুখে ,বিকট শব্দ দূষণের মাধ্যমে কালিগঙ্গা নদীর দু পাড় কে ধ্বংস করে এবং নদীর তলদেশ বিধির্ণ করে, গহীন থেকে বালু- মাটি দিবালোকে জনতার সম্মুখে ঘিওর থানার বানিয়াজুরি ইউনিয়নের কালিগংগা নদী থেকে বিক্রি করছে স্থানীয় ভূমিদস্যু মিলন ও ফরহাদ নামের দুই ভূমিদস্যু ৷ এমন অভিযোগের ভিত্তিতে সংবাদকর্মী বিষয়টি তদন্ত করতে গিয়ে দেখতে পান , মানিকগঞ্জ জেলার ঘিওর থানার বানিয়াজুরী ইউনিয়নের খানপাড়া ও তরা পুরাতন বাজার এলাকায় কালিগঙ্গা নদীর দুই পাড় ধ্বংস করার পর নদীর গহীন থেকে বালু অপসারণ করে নিয়ে যাচ্ছে বিভিন্ন স্থানে ৷
স্থানীয় লোকজন ( নাম প্রকাশে অনিচ্ছু ) বলেন, “ এ ড্রেজার দিয়ে তারা অবৈধভাবে বালু-মাটি বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করছে ৷ গত মাসে স্থানীয় প্রশাসন একবার ভেঙে রেখে যায় ৷ কিন্তু, মাস পূর্ণ না গড়াতেই তারা পুনরায় নতুন পাইপ সংযোজন করে এবং আগের ভাঙ্গা পাইপ মেরামত করে বহুদূর পর্যন্ত বালু- মাটি নিয়ে যাচ্ছে ৷ আমরা সাধারণ লোক ৷ অসহ্য বিকট শব্দ সহ্য করতে হচ্ছে আমাদের ৷ আমরা নিরীহ ৷ বলার কেউ নেই ৷
যেভাবে কালিগঙ্গা নদীকে ধ্বংস করা হচ্ছে , এর ক্ষতির সম্মুখীন আমরাই হবো ৷ এটা জেনেও কেউ বাধা দেওয়ার জন্য এগিয়ে আসছে না ৷ কেন আসছে না ,তাও জানিনা ৷ আমরা এমন শব্দ দূষণ থেকে মুক্তি চাই ৷ আমরা নদী ভাঙ্গন থেকে বাঁচতে চাই ৷ আমাদের ক্ষেত খামারিকে উদ্ধার করতে চাই ৷ আমাদের সকলের দাবি, অতিসত্বর যেন প্রশাসন এমন অবৈধ কাজের প্রতি দৃষ্টি আরোপ করেন ৷ ” স্থানীয় লোকজন থেকে জানা যায়, ড্রেজারের মালিক ফরহাদ ও মিলন ৷ অতঃপর ডেজারের মালিকদের সাথে যোগাযোগ করা হলে , তিনি ড্রেজারের বৈধ কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেননি।
বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ভূমি অফিসাকে জানালে তিনি বলেন ,আমরা অতি দ্রুত ব্যবস্থা নিচ্ছি।

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০