ঢাকা   ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জিম্মি মুক্ত হওয়ার ব্যাপারে জাহাজের চিফ অফিসারের বার্তা

প্রতিবেদকের নাম
  • প্রকাশিত : বুধবার, মার্চ ১৩, ২০২৪
  • 17 শেয়ার

বিজনেস ফাইল ডেস্ক
সোমালিয়ার জলদস্যুদের হাতে জিম্মি বাংলাদেশি জাহাজ এমভি আবদুল্লাহর চিফ অফিসার মো. আতিক উল্লাহ খান মঙ্গলবার (১২ মার্চ) ইফতারের পর হোয়াটসঅ্যাপে স্ত্রীর কাছে একটি অডিও বার্তা পাঠিয়েছেন। বার্তায় তিনি বলেছেন, “আমাদের কাছ থেকে মোবাইল নিয়ে নিচ্ছে। ফাইনাল কথা হচ্ছে, এখানে যদি টাকা না দেয়, আমাদের একজন একজন করে মেরে ফেলতে বলেছে। তাদের যত তাড়াতাড়ি টাকা দেবে, তত তাড়াতাড়ি ছাড়বে বলেছে।”

এর আগে, মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় বেলা দেড়টার দিকে জলদস্যুরা জাহাজটির নিয়ন্ত্রণ নেয়। জাহাজটি মোজাম্বিক থেকে দুবাই যাচ্ছিল। জলদস্যুদের কবলে পড়া চট্টগ্রামের কবির গ্রুপের এই জাহাজটি পরিচালনা করছে গ্রুপটির সহযোগী সংস্থা এস আর শিপিং লিমিটেড। জাহাজে আতিক উল্লাহসহ ২৩ বাংলাদেশি নাবিক রয়েছেন।

বেলা একটার দিকে আতিক জলদস্যুদের কবলে পড়তে যাওয়ার বিষয়টি আঁচ করেছিলেন বলে ধারণা করছেন স্বজনেরা। সে সময় ফোনে আতিক তার স্ত্রী মিনা আজমিনকে বলছিলেন, “কয়েক দিন আমাকে ফোনে পাবে না। আমি নেটওয়ার্কের বাইরে থাকব।”

১৪ বছর ধরে জাহাজে চাকরি করছেন আতিক। তার স্ত্রী মিনা এখন পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। স্বামীর এমন বিপদের খবর শোনার পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। গতকাল রাতে তাকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালের ৫ ডিসেম্বর গ্রুপটির জাহাজ ‘এমভি জাহান মনি’ ছিনতাই করেছিল সোমালিয়ার জলদস্যুরা। তিন মাসের মাথায় মুক্তিপণ দিয়ে জাহাজটি ছাড়িয়ে এনেছিল কবির গ্রুপ।

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০