ঢাকা   ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুমারখালীতে সৈয়দ মাসুদ রুমী সেতু থেকে পায়ে চালিত যানবাহনের টোল মওকুফের দাবীতে মানববন্ধন

প্রতিবেদকের নাম
  • প্রকাশিত : বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২৪
  • 136 শেয়ার

আবু দাউদ রিপন, খুলনা ব্যুরো
কুষ্টিয়া কুমারখালীতে সৈয়দ মাসুদ রুমী সেতু থেকে পায়ে চলিত যানবাহনের টোল মওকুফের দাবীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে ১৩ই ফেব্রুয়ারি ২০২৪ সকাল ১১টায় সেতুর পাশে কুমারখালীর সর্বস্তরের জনগনের আয়োজিত মানববন্ধন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা জাকারিয়া খান জেমস। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান খান। এ ছারাও উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আসাদুর রহমান আশা, কুমারখালী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক সহ প্রমুখ।
মানববন্ধনে বক্তারা জানান, ২০০৪ সালে ৩৫ কোটি টাকা ব্যয়ে কুষ্টিয়া – রাজবাড়ী সড়কস্থ কুমারখালীতে গড়াই নদীর ওপর সৈয়দ মাসুদ রুমী সেতু নির্মাণ করে সওজ বিভাগ। ২০০৫ সাল থেকে সেতু ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে ইজারাদারের মাধ্যমে টোল আদায় করছে সওজ বিভাগ। ইতিমধ্যে নির্মাণ ব্যয়ের কয়েকগুণ টাকা উত্তোলন করেছে সওজ বিভাগ। তবুও টোল আদায় বন্ধ হয়নি।
বক্তারা আরো জানান, ওই সেতুতে টোল আদায়কে কেন্দ্র করে প্রায় ইজারাদারের লোকজনের সাথে দিনমজুর ও জনসাধারণের সাথে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। প্রথম দিকে পায়ে চালিত যানবহন থেকে টোল আদায় বন্ধ ছিল। কিন্তু গেল কয়েক বছর যাবৎ ইজারাদার ও সওজ বিভাগের কর্তাদের যোগসাজশে ভ্যান, সাইকেল রিক্সা থেকেও ১০ টাকা করে টোল আদায় করা হচ্ছে। ফলে প্রতিদিনই দিনমজুর ও খেটে খাওয়া মানুষের ভোগান্তি হচ্ছে। সেজন্য আগামী টেন্ডার থেকে পায়ে চালিত যানবহনে থেকে টোল আদায় বন্ধের দাবি জানান।
এবিষয়ে জেলা প্রশাসক মো. এহেতেশাম রেজা জানান, তিনি পায়ে চালিত যানবহনে টোল আদায় বন্ধের দাবিতে স্মারকলিপি পেয়েছেন। বিষয়টি তাঁর গুরুত্বসহকারে দৃষ্টিগোচর হয়েছে। তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট স্মারকলিপিটি প্রেরণ করবেন।
কার্যালয়ের বিশেষ কাজে ব্যস্ত থাকায় কুষ্টিয়া সওজের নির্বাহী প্রকৌশলী মুহাম্মদ মনজুরুল করিমকে তাঁর কার্যালয়ে পাওয়া যায়নি।মুঠোফোনটিও রিসিভ করেননি তিনি।
জনগণের দাবির সাথে একমত পোষণ করেছেন কুষ্টিয়া -৪ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ। তিনি জানান, টোলের কারণে সকল শ্রেণি পেশার মানুষ নানামুখী ভোগান্তি পোহাচ্ছেন। মানববন্ধনকারীদের দাবি যৌক্তিক। তিনি বিষয়টি নিয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়, সড়ক, সেতু ও পরিবরহন মন্ত্রণালয়ে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। প্রয়োজনবোধে জাতীয় সংসদেও বিষয়টি উত্থাপন করবেন বলে জানান সংসদ সদস্য।

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০